পুরুলিয়ার বিজেপির দুর্গ বলে পরিচিত বলরামপুর ব্লকের পঞ্চায়েত নির্বাচনে সাতটি গ্রাম পঞ্চায়েত দখল করে বিজেপি দুটি জেলা পরিষদের সিটেল জয়লাভ করেন বিজেপি এবং বলরামপুর পঞ্চায়েত সমিতির কুড়িটি আসনের মধ্যে 17 টি আসনে জয়লাভ করে বিজেপি ও তিনটি আসনে তৃণমূল। কিছুদিন আগে বিজেপির জয় 9 জন সদস্য তৃণমূলে যোগদান করলে বর্তমানে তৃণমূলের সদস্য সংখ্যা 12 এবং বিজেপির 8। আগামী 23 রা জানুয়ারি বহরমপুর  পঞ্চায়েত সমিতির গঠনের নির্দেশ দেয় জেলা প্রশাসন তার আগে শক্তি প্রদর্শন করতে বলরামপুর শহরে মিছিল করেন পুরুলিয়া জেলা বিজেপি। এদিন রাজ্য বিজেপির সম্পাদক সায়ন্তন বসু জেলা বিজেপির সভাপতি বিদ্যাসাগর চক্রবর্তী বিজেপি নেতা নরহরি মহ অন্যান্য বিজেপির নেতা ও কর্মী সমর্থক রা এই গণতন্ত্র বাঁচাও মিছিলে পা মেলান। বহরমপুর শহর পরিক্রমা করে বলরামপুর পঞ্চায়েত সমিতির সামনে জমায়েত করে মিছিল শেষ হয়। এদিন সায়ন্তন বসু জানিয়ে দেন পুলিশ প্রশাসন দুষ্কৃতীদের মদত নিয়ে আমাদের কর্মী-সমর্থকদের অপহরণ করছেন এবং ভয় দেখিয়ে জোর করে তৃণমূলে যোগদান করাচ্ছেন তবে এটা বেশিদিন চলবে না বীরভূমে কয়েকদিন আগে বিজেপি কর্মীরা তৃণমূল থেকে পুনরায় বিজেপিতে যোগদান করেছেন বলরামপুর এর প্রভাব পড়বে আমরা নিশ্চিত বলরামপুর পঞ্চায়েত সমিতি বিজেপির হবে। অন্যদিকে রবিবার পুরুলিয়ার আরসা ব্লকের শতাধিক কংগ্রেস নেতা ও কর্মীরা তৃণমূলে যোগদান করেন। তৃণমূল জেলা সভাপতি শান্তিরাম মাহাতো বলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় উন্নয়নের ডাকে সাড়া দিয়ে আর সব লকেট শতাধিক নেতা ও কর্মীরা তৃণমূলে যোগদান করেছেন পুরুলিয়া জেলায় দিনের পর দিন তৃণমূল শক্তি লাভ করছে।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

Blogger দ্বারা পরিচালিত.