এক তৃণমূলকর্মীকে অপহরণের অভিযোগ উঠল বিজেপির বিরুদ্ধে।ঘটনাটি ঘটেছে পুরুলিয়া বরাবাজার ব্লকের ভাগাবাঁধ গ্রাম পঞ্চায়েত সোনাইডুংড়ি গ্রামে। গতকাল রাত্রে নিজের গাড়িতে করে ব্যবসার কাজ সেরে বাড়ি ফেরার পথে কয়েকজন দুষ্কৃতী তাকে বাড়ি থেকে কিছুটা দূরে তাকে অপহরণ করে বলে অভিযোগ। গাড়িতে সাদা কাগজে লিখে দিয়ে যায় তোমরা আমাদের সদস্য কে ভাঙ্গিয়ে বোর্ড দখল করেছো। এরপর তোমাদের কর্মী কে নিয়ে যাচ্ছি।30 লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করে অপহরণকারীরা।পুলিশকে খবর দেয়া হলে আজ সকালে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে ওই গাড়ি থেকে পোস্টারটি খুলে নিয়ে আসে এবং গাড়িটিকে বাজেয়াপ্ত করে। তৃণমূল সূত্রে জানা যাচ্ছে সন্তোষ মাহাতো দলের সক্রিয় কর্মী ছিলেন। পরিবারের লোকজন বড়াবাজার থানায় অপহরণের অভিযোগ দায়ের করেছে। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ। প্রসঙ্গত ভাগাবান্দ গ্রাম পঞ্চায়েতের মোট 16 টি আসনের মধ্যে 7 টি আসন তৃণমূল ,5 বিজেপি 3 কংগ্রেস ও একটি আসনে সিপিএম জয় লাভ করে। 13 ডিসেম্বর এই পঞ্চায়েতের বোর্ড গঠনের দিন ধার্য করে প্রশাসন। বোর্ড গঠন করতে যাবা দুজন বিজেপি ও দুজন কংগ্রেস জয়ী প্রার্থী কে অপহরণ করার অভিযোগ উঠে তৃণমূলের বিরুদ্ধে যদিও কিছুক্ষণ পর তৃণমূলের পক্ষ থেকে একটি ভিডিও ক্লিপ জারি করে দেখানো হয় অপহৃত সদস্যরা তৃণমূলে যোগদান করেছেন। এরপর টানটান উত্তেজনার মধ্যে ভাগাবান্দ গ্রাম পঞ্চায়েত দখল করে তৃণমূল।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

Blogger দ্বারা পরিচালিত.