বাবা বিয়ে স্থির করেছিল।কিন্তু বছর ১৪ এর পুজা রাজোয়াড়ের মোটেই ইচ্ছা ছিলনা বিয়ের।।পরিবারের লোকদের বুঝিয়েও কাজ হয়নি।তাই শেষমেষ বাড়ি থেকে পালিয়েছিল পুরুলিয়া জেলার রঘুনাথপুর ২ ব্লকের চাতরমহুল গ্রামের ওই কিশোরী।।এসেছিল আদ্রার পাশের মেট্যালা গ্রামে মামার বাড়িতে।রবিবার বিকালের দিকে ওই কিশোরীকে গ্রামে উদ্দেশ্যহীনভাবে ঘোরাঘুরি করতে দেখে সন্দেহ হয়েছিল গ্রামের এক আশা কর্মীর।জিজ্ঞাসাবাদের পরে ঘটনা জানিয়েছিল পুজা।ওই আশা কর্মীই যোগাযোগ করেছিল আদ্রার চাইল্ডনাইনের সাথে। বিষয়টি জানানো হয় আদ্রা থানাতে।বিকালেই পুজাকে আদ্রার একটি বেসরকারী হোমে রেখেছিল চাইল্ডলাইন।অন্যদিকে যোগাযোগ করেছিল রঘুনাথপুর ২ ব্লক প্রশাসনের সাথেও।বিকালেই প্রশাসনের কর্তারা চাতরমহুল গ্রামে গিয়ে পুজার বাবা জয়দেব রাজোয়াড়ের সাথে দেখা করে । মেয়ের ১৮ বছর বয়স না হওয়া অব্দি মেয়ের বিয়ে তিনি দেবেননা এই মর্মে পুজার বাবার কাছের থেকে মুচলেকা আদায় করেছে প্রসাসন।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

Blogger দ্বারা পরিচালিত.